১.
সমীকরনটা সহজ, মোরশেদ যখন দেশে আসবে আমি থাকব না আর আমি যখন আসব ও থাকবে না। বাংলাদেশে ফিরে হয়তো সবার সাথেই আবার দেখা হবে কিন্তু মোরশেদের সাথে না (Unless otherwise we have got chance to meet outside of BD)। কেননা মোরশেদ স্বীকার না করলেও আমার হিসাব বলে, He will be settled down there in Canada..! Though he is also going to persue higher education but as the trend says, he has a very little chance to come back!
২.
আজ মোরশেদের হাতটা একটু জোড়ে ঝাকি দিয়ে শেষবারের মত কিছু ইলেকট্রন আদান-প্রদান করে নিলাম, কেননা কিছুক্ষন পরেই কানাডার উদ্দেশ্যে ওর ফ্লাইট, আর এভাবে হয়তো আর দেখাই হবে না। হুম, মোটামুটি কনফার্ম এভাবে বিদায় বলাটা আসলেই কঠিন।
মোরশেদুল ইসলাম, মনেপড়ে কর্মক্ষেত্রে তার চাটগায়ের আঞ্চলিকটানে মজার মজার অথচ বুদ্ধিদীপ্ত কথাগুলো, যা আনন্দ দেওয়ার পাশাপাশি ডিসিশন মেকিং-এ বেশ কাজ করতো। ক্ষিপ্ত হয়ে গেলে ও বলে উঠতো, “মাথার মেজাজ খারাপ হয়ে গেছে”…! বিষয়টা এতই মজার ছিলো যে আজও আমি কোন কারনে ডিস্ট্রাব হলে আপনমনে বলে উঠি, “মাথার মেজাজ খারাপ হয়ে গেছে”…!
৩.
BUBT-র CSE ডিপার্টমেন্টে আমি যখন জয়েন করি তখন পাচজন রেগুলার ফ্যাকাল্টি আর ৮ টি ব্যাচের স্টুডেন্ট নিয়ে এই পরিবারের সর্বমোট সদস্য ছিল মাত্র ২৮…! ২০০৮ এর কথা এটা। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই কমরেড শিমুলের চলে যাবার পর তারই স্থলাভিসিক্ত হয় মোরশেদ। It was our very early time of professional life and was really a time of explosion…! বলতে গেলে তখন আমরা BUBT-কে ২৪ ঘন্টা সময় দিয়েছি। ভাবতে অবাক লাগে, শুধুমাত্র রেগুলার টিচার-ই এখন সেখানে এখন ২৮ এর কাছাকাছি, হয়তো বা ছাড়িয়ে গেছে, আর প্রতি সেমিস্টারে একাধিক ইনটেক এডমিশন নিচ্ছে…! হু, সব কিছু এমনি এমনি হয় না, পিছনে থাকে অনেক পরিশ্রম আর থাকে ইতিহাস।
৪.
মজার মানুষ মোরশেদ। একদিন অফিসে এসে দেখি মাইনুদ্দিন ভাই হাসছে। কি ব্যাপার জিজ্ঞাসা করতেই সে জানালো, অফিস থেকে ফেরার পথে মোরশেদ প্রতিদিনের মতো মোহাম্মাদপুর বাসার উদ্দেশ্যে বাসে উঠেছে। উঠার পর বাস স্টাফ তাকে জানালো বাসটা ডাইরেক্ট(!) সার্ভিস। মোঃপুর তাকে নামানো যাবে তবে তাকে ভাড়া গুনতে হবে আজিমপুর পর্যন্ত। প্রতিদিন সে যাওয়া-আসা করছে অথচ আজ ভাড়া বেশি চায়, মোরশেদের তো মাথার মেজাজ খারাপ হয়ে গেলো। এরপর সে বাস কন্ডাকটরকে ভাড়া দিলো বটে তবে ফ্রি ফ্রি না, ভাড়া সে যতটুকু পর্যন্ত দিয়েছে সে ঠিক ততটুকু পর্যন্ত গিয়ে ছাড়লো…! পরে অবশ্য ফিরতি বাসে নতুন ভাবে টিকেট করে তাকে ফিরে আসতে হয়েছিলো, তাতে কি…!
সুন্দর সময়গুলো দ্রুত ফুরিয়ে যায়, এটাই নিয়ম। মোরশেদ, আশাকরি সামনের সময়গুলো আপনার সুন্দরতম আর দীর্ঘয়িত হবে। Farewell Buddy…!

পুনশ্চঃ
BUBT এর CSE-র মহীরুহ হওয়ার যাত্রায় আরো কিছু প্রিয় সহকর্মীর নিরলস প্রচেষ্টা ছিলো যাদের কেউ কেউ এখনো ওখানে Pillar. আর Energetic স্টুডেন্টরা তো ছিলোই। প্রাসঙ্গিক না বিধায় তাদের নাম এখানে উঠে আসে নি।

FB তে মন্তব্য করতে এখানে লিখুন (ব্লগে করতে নিচে) :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

September 2022
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930